আর্থিক সংকটে অ্যাম্বার হার্ড, শপিং করছেন সস্তামূল্যের দোকানে

নিজের বিলাসী জীবনযাপনের জন্য অ্যাম্বার হার্ডের সুপরিচিতি বেশ আগে থেকেই। নিজের ফ্যাশন আর স্টাইলেরর জন্য দুহাতে টাকাকড়ি উড়াতেন এ হলিউড অভিনেত্রী। তবে বর্তমানে মুদ্রার উল্টোপিঠও দেখতে শুরু করেছেন তিনি।

আয়েশি ভঙ্গিতে জীবনযাপনের চেয়ে আয় বুঝে ব্যয় করার দিকেই এখন বেশি মনোযোগী অ্যাম্বার। তাই তো এখন বড় বড় শপিংমলে ব্যয়বহুল নামীদামী ব্র্যান্ডের পোশাক-আশাকের পরিবর্তে সাশ্রয়ী ও কমদামী আনুষঙ্গিকের খোঁজে কম-খরচের ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে পা রাখছেন তিনি।

স্প্যানিশ দৈনিক মার্কার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, রবিবার (১৯ জুন) যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের ব্রিজহ্যাম্পটনে টি জেড ম্যাক্স- এর দোকানে ঢুঁ মারতে দেখা গিয়েছিল অ্যাম্বারকে। পরে যখন বুঝতে পারলেন তাকে ক্যামেরা অনুসরণ করছে, তখন তিনি শপিংয়ের ঝুড়ি রেখেই সেখান থেকে সটকে পড়েন। কেনার জন্য ঝুড়িতে বেশকিছু পোশাকও বাছাই করে রেখেছিলেন এ চিত্রনায়িকা।

৩৬ বছর বয়সী এ অভিনেত্রী ক্যামেরার লেন্স দেখে ছুটে পালিয়ে গেলেও ততক্ষণে তিনি ক্যামেরাবন্দি হয়ে গিয়েছেন। টি জেড ম্যাক্স- এর দোকানে অ্যাম্বারের পাদচারণার ভিডিও টিএমজির মাধ্যমে ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। টি জেড ম্যাক্স- এর দোকানে শপিংয়ের সময়ে অ্যাম্বার হার্ডের সঙ্গে ছিলেন তার বোন হুইটনি হেনরিকসও।

ধারণা করা হচ্ছে, সাবেক স্বামী ও হলিউড তারকা জনি ডেপের বিরুদ্ধে ১০০ মিলিয়ন ডলারের মানহানি মামলায় হেরে আর্থিকভাবে বড় রকমের ধাক্কা খেয়েছেন অ্যাম্বার হার্ড। মামলায় পরাজয়ের কারণে জনি ডেপকে ১৫ মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ দিতে হবে হার্ডকে। যদিও আপিলের সুযোগ রয়েছে বলে উচ্চ আদালতের শরণাপন্ন হওয়ার আভাস দিয়ে রেখেছেন এ অভিনেত্রী।

যদিও শেষ পর্যন্ত নানা কাটাছেঁড়ার পর তাকে পরিশোধ করতে হবে ৮.৩ মিলিয়ন ডলার। কিন্তু শোনা যাচ্ছে, এ অর্থ পরিশোধ করার মতো আর্থিক অবস্থাতেও নেই অ্যাকুয়াম্যান খ্যাত এ অভিনেত্রী। এজন্যেই এখন টাকা বাঁচানোর দিকে অধিকতর মনোযোগী হার্ড।

যদিও সংবাদমাধ্যমে জোর গুঞ্জন, নিজের সাবেক স্ত্রীকে ক্ষতিপূরণের টাকাটা তাকে মকুফ করে দিবেন বলে আভাস দিয়েছেন জনি ডেপ। তবে আইনিভাবে ক্ষতিপূরণের টাকাটা নিজের পাওনা বলে জনি ডেপের তা নেওয়া উচিত বলেই তা মনে করছেন অনেকে। কারণ এ মুহূর্তে ৫৮ বছর বয়সী অভিনেতার হাতেও কোনো কাজ বা সিনেমার প্রস্তাব নেই।

এদিকে, সংবাদমাধ্যমে ফাঁস হওয়া গোপন তথ্যে শোনা যাচ্ছে, অ্যাকুয়াম্যান ২ সিনেমায় অভিনয়ের জন্য কয়েক মিলিয়ন ডলার পারিশ্রমিক পাওয়ার কথা অ্যাম্বার হার্ডের, যা ৩৬ বছর বয়সী অভিনেত্রী  অগ্রিম নিয়ে নিয়েছেন।

বিনোদন এর সাম্প্রতিক